ওপেন সিস্টেমের বৈশিষ্ট্য

ওপেন সিস্টেমের বৈশিষ্ট্য নিয়ে আজকের আলোচনা। এই পাঠটি “সিস্টেম অ্যানালাইসিস অ্যান্ড ডিজাইন” বিষয়ের “ইনফরমেশন সিস্টেমস ও ম্যানেজমেন্টের উপাদানসমূহ” বিবাগের একটি পাঠ। ওপেন বা খোলা সিস্টেমের ৫টি বৈশিষ্ট রয়েছে, যা নিচে আলোচনা করা হলো-

ওপেন সিস্টেমের বৈশিষ্ট্য

ওপেন সিস্টেমের বৈশিষ্ট্য

ওপেন বা খোলা সিস্টেমের ৫টি বৈশিষ্ট:

(ক) বাহির হতে ইনপুট গ্রহণ (Input from outside), 

(খ) এনট্রপি (Entropy),

(গ) প্রসেস, আউটপুট এবং চক্র (Process, output and cycles), 

(ঘ) ডিফারেনসিয়েশন (Differentiation),

(ঙ) ইকুইফাইনালিটি (Equifinality)।

 

(ক) বাহির হতে ইনপুট গ্রহণ (Input from outside):

ওপেন সিস্টেম বাহির হতে ইনপুট গ্রহণের পর নিজেই পরিচালিত হয়। যদি সমস্ত কার্য সুষ্ঠুভাবে সম্পূর্ণ হয় তবে ওপেন সিস্টেম একটি স্থির অবস্থায় এসে পৌঁছায়ে থাকে, যাকে স্টেডি স্টেট অথবা ইকুইলিব্রিয়াম স্টেট বলে। যেমন- একজন পাইকারি বিক্রেতা যে পরিমাণ দ্রব্য বাহির হতে ক্রয় করে সে যদি ঐ দ্রব্যের সবটুকু বিক্রি করতে পারে তবে তার দ্রব্যের কোনো ঘাটতি বা অতিরিক্ত থাকবে না। তখন পাইকারি বিক্রেতার এই অবস্থাকে ইকুইলিব্রিয়াম স্টেট বলে । ইকুইলিব্রিয়াম স্টেটের উপর বা নিচে গেলে লাভ বা ক্ষতির সম্ভাবনা থাকে। এ ব্যাপারে সিস্টেম অ্যানালিস্টগণকে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে

 

ওপেন সিস্টেমের বৈশিষ্ট্য

(খ) এনট্রপি (Entropy) :

মাঝে মাঝে কোনো ওপেন সিস্টেমে ক্ষতির সম্ভাবনা দেখা দিতে পারে, যেমন- ঠিকমতো দ্রব্য উৎপাদন না হওয়া অথবা অতিরিক্ত বিদ্যুৎ খরচ ইত্যাদি। ফলে সমস্ত সিস্টেমের উপর প্রভাব বিস্তার করে। কিন্তু এনট্রপি এমন একটি ওপেন সিস্টেমের বৈশিষ্ট্য, যা উপরোক্ত ক্ষতিকে বাধা প্রদান করে। এর জন্য প্রয়োজন ইনপুট বাহির হতে সরবরাহ করা, প্রসেসিং সিস্টেমকে রদবদল করা ইত্যাদি।

(গ) প্রসেস, আউটপুট এবং চক্র (Process, output and cycle) :

একটি নির্দিষ্ট প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ওপেন সিস্টেম দ্রব্য উৎপাদন করে, যা তার প্রসেস ও চক্রের উপর নির্ভরশীল।

(ঘ) ডিফারেনসিয়েশন (Differentiation) :

ওপেন সিস্টেমের একট বড় বৈশিষ্ট্য ডিফারেনসিয়েশন। যখন কোনো সিস্টেম আবর্তিত হয় তখন সেখানে অবশ্য নতুন নতুন চিন্তাধারার বিকাশ এবং মতপার্থক্য অথবা নতুন টেকনোলজির বিবর্তন হতে পারে। কারণ বাহির জগৎ ক্রমশ পরিবর্তনশীল। সুতরাং, এই পার্থক্য সম্পর্কে ধারণা থাকা একজন সিস্টেম অ্যানালিস্টের কর্তব্য।

 

ওপেন সিস্টেমের বৈশিষ্ট্য

 

(ঙ) ইকুইফাইনালিটি (Equifinality) :

ওপেন সিস্টেমের একটি বড় বৈশিষ্ট্য তার উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন হয়েছে কি না তা পরীক্ষা করা এবং এই উদ্দেশ্য সাধনের জন্য কোন পথে যেতে হবে অথবা সিস্টেমের কী প্রবাহ পরিবর্তন করতে হবে তা একজন দক্ষ সিস্টেম অ্যানালিস্টের পবিত্র দায়িত্ব ও কর্তব্য। উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন না হলে সেটা মূলত কোনো সিস্টেমের সংজ্ঞার আওতায় পড়বে না ।

 

সূত্র:

  • ওপেন সিস্টেমের বৈশিষ্ট্য | ইনফরমেশন সিস্টেমস ও ম্যানেজমেন্টের উপাদানসমূহ | সিস্টেম অ্যানালাইসিস অ্যান্ড ডিজাইন।

আরও দেখুনঃ

1 thought on “ওপেন সিস্টেমের বৈশিষ্ট্য”

Leave a Comment